Feeds:
Posts
Comments

Posts Tagged ‘নেলসন ম্যান্ডেলা’

Great anger and violence can never build a nation. We are striving to proceed in a manner and towards a result, which will ensure that all our people, both black and white, emerge as victors.

– Nelson Mandela (Speech to European Parliament, 1990)

২০৩.

নেলসন ম্যান্ডেলার ‘লঙ ওয়াক টু ফ্রিডম’টা পড়তে যেয়ে চোখ ঝাপসা হয়ে যাচ্ছিলো বার বার। আমাদের দেশের সাথে অনেকগুলো ঘটনা মিলে যাচ্ছে বলে কষ্টটা বেড়েছে। অবাক কান্ড – অন্য জায়গায়! বইটার নতুন ভার্সনটার মুখবন্ধ লিখেছেন আমার প্রিয় একটা মানুষ। তাকে খুব কাছ থেকে পেয়েছিলাম দু দুবার। কথাও বলেন চমত্কার। নিশ্চিত আমি, ধরে ফেলেছেন আপনি। প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন। দেশকে কিভাবে তুলতে হয় সেটা দেখেছি তার ফরেন পলিসিতে। মুখবন্ধ পড়তে গিয়েই বইটা দুবার বন্ধ করে ভাবছিলাম। ক্লিনটন তার সাথে ম্যান্ডেলার কিছু কথাবার্তার স্ন্যাপশট নিয়ে এসেছেন মুখবন্ধেই। প্রথমটা পড়ে ধাতস্থ হতে না হতেই পরেরটা মনের অর্গল খুলে দিলো। পাশ কাঁটাতে পারলাম না বইটাকে।

২০৪.

‘সত্যি করে বলুনতো?’ ক্লিন্টনের প্রশ্ন, ‘দীর্ঘ সাতাশ বছর পর জেল থেকে মুক্তির পথে হাঁটার সময় কেমন মনে হয়েছিলো আপনার? ওদেরকে কি নতুন করে ঘৃনা করতে শুরু করছিলেন?’

‘অবশ্যই ঘৃনা করেছিলাম।’ ম্যান্ডেলার সহজ সরল উত্তর। ‘ওরা আমাকে আটকে রেখেছিলো অনেকটা বছর। অমানবিক ব্যবহার করেছে আমার সাথে। জীবনের সর্বশ্রেষ্ঠ সময়টা পার করেছি এই কুঠুরিতে। বিয়েটাও শেষ হয়ে গিয়েছে ওই কারণে। বাচ্চাদের বড় হওয়ার সময় পারিনি পাশে থাকতে। প্রচন্ড রকমের ক্রোধান্বিত ছিলাম ওদের ওপর। আতঙ্কগ্রস্ত সময় পার করতে হয়েছে ওই লম্বা – আটকে থাকার সময়টাতে।’

‘তবে মুক্তির সময়ে গাড়িটার কাছে হেঁটে যাচ্ছিলাম যখন – অনেক চিন্তাই ঘুরপাক খাচ্ছিলো মাথায়। গেটটা পার হবার সময় একটা উপলব্ধিতে পৌছালাম। ওদেরকে তখনো ঘৃনা করলে ওরাতো পেয়ে গেলো আমাকে। ওটাতো চাইনি আমি। মুক্তি চেয়েছি বরং ওই সংকীর্ণতা আর বিদ্বেষের শৃঙ্খল থেকে। ওই সর্বগ্রাসী ঘৃনা তুলে নিলাম ওদের ওপর থেকে। ওই মুহূর্ত থেকেই।’

___
* পুরো মুখবন্ধটা নিয়ে আসবো সামনে। আমাজনে বইটার লিঙ্কে গেলে প্রথম অধ্যায়টা পড়তে পারবেন বিনামূল্যে। জীবন পাল্টে দিয়েছে এই আমাজন। বইয়ের কাভারের ছবিটার উপর ক্লিক করুন। পুরো মুখবন্ধটা পড়তে ভুলে যাবেন না কিন্তু। বলে নিচ্ছি আগে, আমি বঙ্গানুবাদে বিশ্বাসী নই। আমার ধারনায়, মুখবন্ধের শেষ প্যারাটাই পুরো বইটার ওয়ান লাইনার!  ভুল হলে ক্ষমা করে দেবেন আশা করি।

Advertisements

Read Full Post »

%d bloggers like this: